বিশ্বের সবচাইতে ধনী ব্যক্তিদের মাঝে তার স্থান পঞ্চম। কিন্তু তার বিলাস বহুল বাড়িটিই পৃথিবীর মাঝে সেরা! অন্তত ফোর্বসের চোখে তেমনটাই। সম্প্রতি ফোর্বস ম্যাগাজিন প্রকাশ করেছে এই তালিকা আর সেই তালিকায় মুম্বাইয়ের আল্টামাউন্ট রোডে মুকেশ-নীতা অাম্বানির বিলাসবহুল বাড়ি টেক্কা দিল দুনিয়ার সবাইকে। মার্কিন পত্রিকা ফোর্বসের বিচারে, শত কোটিপতিদের তালিকায় পাঁচ নম্বরে থাকা মুকেশ আম্বানির বাড়িই সকল ধনকুবেরের বাড়ির মধ্যে শ্রেষ্ঠ।
ফোর্বসের সাম্প্রতিক তালিকা বলছে, লক্ষ্মী মিত্তলের লন্ডনের বাড়ির চেয়েও বেশি দামী মুকেশ আম্বানির 'অ্যান্টিলিয়া'। যা তৈরি করতে ন্যূনতম ২০০ কোটি মার্কিন ডলার খরচ হয়েছে। চারলক্ষ বর্গফুটের অ্যান্টিলিয়াতে ভূগর্ভস্থ ছয় তলা শুধু গাড়ি পার্কিংয়ের জন্য। তাতে ১৬৮টি গাড়ি দাঁড়াতে পারে। বাড়ির ছাদে রয়েছে তিনটি হেলিপ্যাড। জনা পঞ্চাশেক লোক এক সঙ্গে বসে সিনেমা দেখবে এমন থিয়েটার রয়েছে ওই বাড়িতে। বাড়ির ঝাড়লণ্ঠন এবং জানলার কাচ , সবই বেলজিয়াম গ্লাসের। ভূমিকম্পের সময় রিখটার স্কেলে কম্পন যদি ৮ মাত্রা স্পর্শ করেও তা হলেও এই বাড়ির কিচ্ছু হবে না।
ফোর্বসের ২১টি মহার্ঘ কোটিপতি আবাসনের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ব্রাজিলীয় সমাজকর্মী এবং দান-ধ্যানে বিশ্বাসী লিলি সাফরার ফ্রান্সের বাড়ি 'ভিলা লিওপোল্ডা।' ২০ একর জমির উপর বেলজিয়ামের রাজা দ্বিতীয় লিওপোল্ডের এই বাড়িটি তৈরি হয়েছিল তাঁর একাধিক রক্ষিতার জন্য। ২০০৮ সালে রুশ ধনকুবের মিখাইল পোখোরোভ ৭৫ কোটি মার্কিন ডলার দিয়ে বাড়িটি কিনে নিতে চেয়েছিলেন।
তৃতীয় স্থান পেয়েছে মার্কিন বিনিয়োগকারী ও ব্যবসায়ী ইরা রেনার্টের নিউ ইয়র্কের স্যাগাপোনাকের বাড়িটি। ২৪ .৮৫ কোটি মার্কিন ডলার মূল্যের এই বাড়ির চত্বরে একটি আস্ত বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র রয়েছে।
লন্ডনের কেনসিংটন প্যালেস গার্ডেন্সে আর্সেলর মালিক লক্ষ্মী মিত্তলের তিনটি বাড়ি রয়েছে। তার মধ্যে দু'টি ফোর্বসের তালিকায় পঞ্চম এবং ১৮তম স্থান দখল করেছে।
বিভাগ:

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.