প্রতিদিন আমরা কতো কিছু তো খেয়ে থাকি। আর খাওয়ার কথা এলে মুখের স্বাদের দিকে নজরটাই বেশি দিই। কিন্তু মুখের স্বাদের দিকে নজর দিতে গিয়ে দেহের প্রতি নজর দিতে বেশীরভাগ সময়ই ভুলে যাই। ভুলে যাই ভালো খাদ্যাভ্যাস আমাদের দেহকে সুস্থ রাখতে খুব বেশি গুরুত্বপূর্ণ।
তাই আমাদের নিজেদের সুস্থতার কথা মাথায় রেখে খেতে হবে দেহের জন্য ভাল খাবার, তা সে স্বাদে যেমনই হোক না কেন। আসুন আজকে জেনে নিই এমন ৭ টি খাবারের নাম যা খাদ্যতালিকায় রাখলে আমাদের দেহ থাকবে নীরোগ চিরকাল। এবং সব চাইতে সুখকর বিষয় হলো এই খাবারগুলো স্বাদের দিক থেকেও অতুলনীয়।

লেবু জাতীয় ফল

লেবু জাতীয় ফল যেমন, কমলা, মালটা এবং লেবু আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ভালো খাবার। ১ টি মাত্র কমলা আমাদের দেহের প্রতিদিনের ভিটামিন সি এর চাহিদা পূরণ করতে কার্যকরী। লেবু জাতীয় ফল দেহে ভালো কলেস্টোরলের মাত্রা বাড়ায়, হাড় ও দাঁতের গঠন মজবুত করে এবং ক্যান্সারের কোষ উৎপাদন প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে।

মটর দানা

ছোট ছোট মটর দানার রয়েছে অসাধারণ স্বাস্থ্য গুণ। প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ভিটামিন, মিনারেল, জিংক এবং আয়রনে ভরপুর মটর দানা আমাদের দেহকে নানা রোগের হাত থেকে বাঁচায়।

ডিমের কুসুম

মস্তিস্কের জন্য প্রয়োজনীয় ক্লোরিন খাবারে খুঁজে পাওয়া খুব কঠিন। কিন্তু ডিমের কুসুম এই অভাবটি পূরণ করে। এছাড়াও ডিমের কুসুমের ক্লোরিন স্তন ক্যান্সারের হাত থেকে বাঁচায়। এবং এর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট মাংসপেশির শুকিয়ে যাওয়া এবং চোখে ছানি পড়া থেকেও রক্ষা করে। তবে ডিমের কুসুমের একটি খারাপ দিক হচ্ছে এটি উচ্চ মাত্রায় কলেস্টোরল সমৃদ্ধ খাবার। তাই হার্টের রুগীদের এর থেকে দূরে থাকাই ভালো।

আপেল

লাল আপেলকে বলা হয় অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের পাওয়ার হাউজ যা আমাদের দেহে নানা ক্ষতিকর পদার্থ উৎপন্ন হতে বাঁধা প্রদান করে। পলিফেনলস নামক যে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আপেলে থাকে তা আমাদের দীর্ঘ জীবন নিশ্চিত করে এবং হৃদপিণ্ডের নানা সমস্যা থেকে আমাদের দূরে রাখে।

কাঠবাদাম

এই ছোট ছোট বাদাম গুলো বিকেলের নাস্তায় অনায়েসে যে কোন খারাপ স্নাকসের পরিবর্তে খাওয়া যায়। এই বাদামে রয়েছে মনোস্যাচ্যুরেটেড ফ্যাট, প্রোটিন, ভিটামিন এবং প্রয়োজনীয় মিনারেস যা আমাদের দেহকে রাখে সুস্থ। এবং কাঠবাদাম আমাদের দেহের খারাপ কলেস্টোরল কমাতেও বিশেষভাবে কার্যকর।

স্ট্রবেরি

নানা ভিটামিন, অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর স্ট্রবেরি আমাদের দেহে ক্যান্সারের কোষ গঠন প্রতিরোধ করে। এবং দেহের কলেস্টোরলের মাত্রা কমিয়ে আমাদের হৃদপিণ্ডকে রাখে সুস্থ।

বেদানা

বেদানায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা আমাদের চিন্তা করার ক্ষমতা বাড়ায় এবং আমদের মস্তিষ্ককে কর্মক্ষম রাখে।

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.