স্বামী বা স্ত্রী, বন্ধু বা আত্মীয়দের সঙ্গে প্রায়ই ঝগড়ায় জড়াচ্ছেন? সাবধান! ডেনমার্কের গবেষকরা বলছেন, এ ধরনের ঘটনা আপনার অকালমৃত্যুর ঝুঁকি বাড়িয়ে দিতে পারে। বিশেষ করে পুরুষ ও বেকাররাই এক্ষেত্রে বেশি ঝুঁকির মধ্যে রয়েছেন।
গবেষণায় তাঁরা দেখতে পেয়েছেন, সারাক্ষণ দুশ্চিন্তা এবং পরিবারের সদস্যদের নানা রকম প্রত্যাশার চাপও মধ্য বয়সে ডেকে আনতে পারে অকালমৃত্যু।
যেসব দম্পতির মধ্যে নিয়মিত ঝগড়া হয়, তাঁদের অকালমৃত্যুর ঝুঁকি অন্যদের তুলনায় দুই বা তিনগুন বেড়ে যায়। যদিও এর সঠিক কারণ সম্পর্কে স্পষ্ট কোনো ধারণা গবেষকরা দিতে পারেননি।
কোপেনহেগেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীদের এই গবেষণা প্রবন্ধ সম্প্রতি ‘এপিডেমিওলোজি অ্যান্ড কমিউনিটি হেলথ' জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে।
অকালমৃত্যুর সঙ্গে স্বাস্থ্য ও জীবনযাপনের সম্পর্ক খুঁজতে গিয়ে এই গবেষণায় ৩৬ থেকে ৫২ বছর বয়সি ১০ হাজার ডেনিশ নাগরিকের ওপর ১১ বছর ধরে পর্যবেক্ষণ চালান গবেষকরা। এই সময়ের মধ্যে নারী অংশগ্রহণকারীদের ৪ শতাংশ এবং পুরুষদের ৬ শতাংশের মৃত্যু হয়৷ পরে তাঁদের প্রত্যেকের তথ্য বিশ্লেষণ করে সংসারে অশান্তি ও দুশ্চিন্তায় ভোগার ইতিহাস পাওয়া গেছে।
এই গবেষক দলের প্রধান অধ্যাপক রিকি লুন্ড বলেন,‘সম্পর্কের জটিলতা কীভাবে সামাল দিতে হবে তা শিখে নিতে পারলে জীবনের ঝুঁকি অনেক কমিয়ে আনা সম্ভব।' এর আগে এক গবেষণায় দেখা গিয়েছিল, যারা বেশি মাত্রায় দুশ্চিন্তায় ভোগেন এবং প্রায়ই স্বজনদের সঙ্গে বিবাদে জড়ান, তাঁদের হৃদরোগ ও স্ট্রোকের ঝুঁকি বেড়ে যায়৷ সামাজিক সহায়তা এবং বন্ধুদের ইতিবাচক সহচার্য যে এসব ক্ষেত্রে সুফল দিতে পারে- তাও দেখা গিয়েছিল আরেকটি গবেষণায়।
সূত্র- ডয়েচ ভেল
বিভাগ:

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.