অবশেষে আইনি নিয়মনীতির মধ্য দিয়ে ঋত্বিক-সুজানের বিবাহবিচ্ছেদ ঘটতে যাচ্ছে। গত বছরেই আলাদা থাকতে চেয়ে ১৩ বছরের সর্ম্পকের ইতি টেনেছিলেন ঋত্বিক-সুজানের। বুধবার সকাল ৯.৩০ নাগাদ মুম্বাইয়ের বান্দ্রা ফ্যামিলি কোর্টে ডিভোর্স ফাইল করে সেই ইতির সন্দেহটা এবার সত্যে পরিণত করলেন।
১৭ বছরের প্রেম, ১৩ বছরের বৈবাহিক সর্ম্পক। পাঠকের জন্য জানিয়ে রাখা ভাল ডিভোর্স ফাইলে একে অপরের বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ, কোনও রাগ বা বঞ্চনার কথা নেই। শুধুমাত্র সর্ম্পকে মনের মিল না হওয়ার কারণ দেখিয়েই আলাদা হলেন ঋত্বিক-সুজান।
আদালতের রায় অনুযায়ী দুই ছেলে হৃহান ও হৃধান থাকবে মা সুজানের কাছেই। তবে মাঝে মধ্যে ঋত্বিক দেখা করতে যেতেই পারেন ছেলেদের সঙ্গে। এমনকি ছেলেদের ভরণ-পোষণের কিছু দায়িত্বই নিতে পারেন ঋত্বিক সে কথাই স্পষ্ট করা হয়েছে ডিভোর্স ফাইলের নিয়মে।
উল্লেখ্য, ফেব্রুয়ারি মাসের শেষের দিকে সুজানকে ঘরে ফেরাতে রাকেশ রোশন দেখা করেছিলেন সুজানের সঙ্গে। তবে সে দেখা করার ফল যে ইতিবাচক নয়, তা স্পষ্ট ডিভোর্স ফাইলের ঘটনা থেকেই। আপাতত, সুজান রয়েছেন বান্দ্রার নিজস্ব ভাড়া নেয়া ফ্ল্যাটে। মুম্বাইয়ের এই এলাকাতেই নিজস্ব ইন্টেরিয়রের দোকান খুলেছেন সুজান। আর ঋত্বিক ব্যস্ত, ক্যাটরিনার সঙ্গে জুটি বেঁধে নতুন ছবি ‘ব্যাং ব্যাং’-এর শুটিংয়ে
বিভাগ:

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.