ডুবে যাওয়া এমভি মিরাজ-৪ এর উদ্ধার অভিযান দ্বিতীয় দফায় শনিবার বিকেল ৩টা ৪০ মিনিটে সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়েছে। বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান ড. শামসুদ্দোহা খন্দকার দ্বিতীয় এই ঘোষণা দেন।
তিনি জানান, লঞ্চটির নিচের অংশ থেকে উপরের অংশ বেশি প্রশস্ত থাকায় বাতাসে ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছিলো লঞ্চটি। যে কারণে দ্রুত পানিতে তলিয়ে যায়।
উদ্ধার অভিযানের বিলম্বের বিষয়ে তিনি বলেন, উদ্ধারকারী জাহাজ প্রত্যয় দিয়ে প্রথমবারের মতো উদ্ধার কাজ পরিচালনা করা হয়েছে। তাই একটু বিলম্ব হয়েছে।
সকালে কেন উদ্ধার কাজ সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়েছিলো এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিআইডব্লিউটিএ‘র কাজ হচ্ছে পানি থেকে লঞ্চটি উপরে তোলা, তাই জাহাজটি উপরে তুলে আমরা সমাপ্তি ঘোষণা করেছিলাম। পরে এমপি ও জেলা প্রশাসনের আপত্তির মুখে আবারও উদ্ধার কাজ শুরু করে বিআইডব্লিউটিএ।
বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে শনিবার দুপুর পর্যন্ত মোট ৫৪ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার হওয়া ৫৪ লাশের মধ্যে ৫৩ জনের লাশ শনাক্ত শেষে তাদের স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
এছাড়া গতকাল বিকেল থেকে ১৯ জন নিখোঁজের তালিকা করেছিল স্বজনেরা। এর মধ্যে লঞ্চ উদ্ধারের পর ১২ জনকে সনাক্ত করেছে স্বজনেরা। ৭ জন এখনও নিখোঁজ রয়েছে।
তবে এখনও অনেক যাত্রী নিখোঁজ রয়েছেন, যাদের লাশ উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। বৃহস্পতিবার তিন শতাধিক যাত্রীসহ লঞ্চটি ডুবে যায়। ডুবে যাওয়ার পরপরই ৫০-৬০ যাত্রী সাঁতরে তীরে এসেছেন এবং ৫৪ টি লাশ উদ্ধার করা সম্ভব হয়। বাকিরা এখনও নিখোঁজ রয়েছেন।

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.