যে কোনো কারণে এবং যে কোনো সময় মন খারাপ হতেই পারে। কোনো কাজে বিফল হলে, কারো কাছ থেকে না সুচক কিছু শুনলে, যেরকমটা ভাবা হয়েছিল সেরকম না হলে, একাকীত্বে ভুগলে, অতিরিক্ত রাগ উঠলে এরকম হাজারো কারণে মন খারপ করে ফেলি আমরা। এমন অনেককে খুঁজে পাওয়া যাবে যে নিজের সুখের মুহূর্তেও মন খারপ করে ফেলেন।
কিন্তু মন খারাপ করাটাই কোনো কিছুর সমাধান নয়। বরং মন খারাপের কারণের বিরুদ্ধে উঠে দাঁড়িয়ে কাজ করে তা জয় করাটাই আনন্দের। আমাদের সমস্যা হলো একবার মন খারাপ করে ফেললে পরবর্তীতে সাধারণ অবস্থায় ফিরে আসতে অনেক বেশি সময় ব্যয় করি। সেকারণে আমাদের শিখতে হবে কি করে মন খারাপের মুহূর্তগুলোকে এড়িয়ে মন খারাপের হাত থেকে বাঁচা যায়।

কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করুন

মন খারাপের আগে মুহূর্তে ভেবে দেখুন আপনি যে ব্যাপারে এতো মন খারপ করছেন কষ্ট পাচ্ছেন তা কি সব চাইতে যন্ত্রণাময় ব্যাপার? নাকি পৃথিবীতে আরও অনেক বেশি যন্ত্রণার ও কষ্টের ব্যাপার রয়েছে। ভেবে দেখুন আপনি যে অবস্থানেই থাকুন না কেন আপনার চাইতেও খারাপ অবস্থানে অনেক মানুষ রয়েছে। তাই মন খারাপের মুহূর্ত এড়াতে হলেও তাদের কথা একবার ভেবে আপনি যে অবস্থানে আছেন তার জন্য কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করুন।

আশাবাদী হোন

আশা করার ওপর পুরো পৃথিবী দাঁড়িয়ে আছে। যখনই আপনি আশা করা ছেড়ে দেবেন আপনার জীবনের মূল্য অনেক কমে যাবে। তাই মন খারাপ বা কষ্টের মুহূর্তেও আশা করা ছাড়বেন না। একবার বিফল হলে কি হবে, পরবর্তীতে আপনি আরও অনেক বেশি পরিশ্রমে সফলতা আনবেন এই আশা মনের মধ্যে রাখবেন। দেখবেন মন খারাপ এবং কষ্টের অনুভূতি দূরে সরে যাবে।

অতিরিক্ত চিন্তা করা থেকে বিরত থাকবেন

আমাদের মূল সমস্যা হলো আমরা যখন কোনো ব্যাপারে কষ্ট পাই তখন মন খারাপ করে সেই ব্যাপারটি নিয়ে গভীর ভাবে চিন্তা করা শুরু করি এবং আরও বেশি কষ্ট পেতে থাকি। এই কাজটি একেবারেই করবেন না। এইরকম চিন্তা মাথায় আস্লেই নিজের মনোযোগ অন্যদিকে সরিয়ে ফেলুন। আর কিছু না হোক হাসির কোনো ভিডিও দেখতেই বসে যান। দেখবেন দুঃখের অনুভূতি দূরে চলে যাবে।

সমস্যায় পড়লে তা সমাধান করতে শিখুন

সমস্যায় পড়লে কিংবা কষ্টের কোনো কারণ সামনে আসলে তা নিয়ে মন খারাপ করে বসে থাকলে তো আর সমস্যার সমাধান হবে না। সমাধানের চেষ্টা করতে হবে আপনাকেই। কোনো সমস্যায় পড়লে তা সমাধানের চেষ্টা করার মতো আত্মবিশ্বাস গড়ে তুলুন নিজের মধ্যে। অন্তত একবার চেষ্টা করে দেখুন। চেষ্টা করার সময় দেখবেন মন খারাপ তো নেইই তারওপর নিজের মধ্যে আত্মবিশ্বাসের সৃষ্টি হবে।

যা যেমন সেটাকে সেভাবেই স্বীকার করে নিন

মন খারাপের অনেক কারণের মধ্যে এই কারণটি অন্যতম। আমরা অনেক সময় নিজের মন মতো কিছু না হলেই মন খারাপ করে ফেলি, কষ্ট পেতে থাকি। কিন্তু এই মন খারাপ এবং কষ্ট পাওয়া সেই জিনিসটিকে বদলে দেবে না। তাই মেনে নিতে শিখুন। যা যেভাবে হওয়ার কথা ছিল হবেই। এর ব্যতিক্রম হবে না। এই জিনিসটি মানতে শিখুন।

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.