মানসিক চাপ আমাদের শরীর ও মন দুটোর জন্যই মারাত্মক ক্ষতিকর। মানসিক চাপ আমাদের সাধারণ জীবন যাপন বিপর্যস্ত করে দেয়। মনের সাধারণ উৎসাহ এবং উদ্দীপনা নষ্ট করে আমাদের পুরোপুরি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত করে তোলে। মানসিক চাপে থাকলে স্বাস্থ্যও ভেঙে পড়তে থাকে। তাই আমদের মানসিক চাপ থেকে যতোটা সম্ভব দূরে থাকা উচিৎ।
কিন্তু মানসিক চাপ তো ইচ্ছে হলেই দূর করা যায় না। হ্যাঁ, কথাটি ঠিক। কিন্তু মানসিক চাপ নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব। এবং কিছু কাজে খুব সহজেই মনের ওপরের এই অবাঞ্ছিত চাপ থেকে আমরা নিজেদের রক্ষা করতে পারি। চলুন তবে দেখে নেই মানসিক চাপ মুক্ত থাকতে প্রত্যেকের যে ৪ টি কাজ করা উচিৎ।

কাজ এবং কাজের বাইরের জীবন আলাদা রাখুন

মানসিক চাপ বেশীরভাগ সময় কাজ থেকে আসে। কাজের চিন্তায় পরে আমরা অনেকেই মানসিক চাপে ভুগি দিনের বেশীরভাগ সময়। কিন্তু সামান্য সতর্কতা অবলম্বনে এর থেকে রেহাই পেতে পারি আমরা। কাজ এবং কাজের বাইরের জীবনটা আলাদা করে রাখার চেষ্টা আমাদের দেবে মানসিক চাপ মুক্ত জীবন। কাজের চাপ যখনই আপনি নিজের জীবনের বড় অংশ করে ফেলবেন তখন আপনি পুরোপুরি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়বেন। তাই কাজের চাপ থেকে মুক্ত থাকতে চাইলে কাজের বাইরের জীবনে চলে যান খানিকটা সময়ের জন্য। দেখবেন অনেকাংশে মানসিক চাপ থেকে রেহাই পাবেন।

ইতিবাচক চিন্তা ভাবনা করুন

একটি নেতিবাচক মন কখনোই আপনাকে ইতিবাচক জীবন দিতে পারে না। বরং তা আপনার মানসিক চাপই বাড়াবে। আপনি যতো নেতিবাচক চিন্তা মনে পোষণ করবেন ততো আপনার মানসিক চাপ বাড়বে। ধরুন আপনি একটি নতুন কাজে হাত দেবেন, আপনি যদি আগে থেকেই চিন্তা করেন আপনাকে দিয়ে হবে কি হবে না, কি হবে, সমস্যায় পড়লে কি করবেন ইত্যাদি তাহলে তা শুধু আপনার মানসিক চাপ নেয়াই হবে। তাই ইতিবাচক চিন্তা করুন। সৃষ্টিকর্তার নাম নিয়ে কাজ শুরু করুন দেখবেন পথ ঠিকই বের হয়ে যাবে।

মেনে নেয়ার ক্ষমতা রাখুন

হার এবং জিত এই দুয়ের সংমিশ্রণেই জীবন। আপনার যদি মেনে নেয়ার ক্ষমতা থাকে তবে আপনি জীবনে অনেক সফলতা পাবেন এবং তা মানসিক চাপে না থেকেও। আপনি হেরে গেলেন কোনো কারণে, সেটি যদি মেনে নিয়ে নতুন ভাবে আবার কাজ শুরু করেন তবে একদিন না একদিন সফলতা আসবে। কিন্তু আপনার মেনে না নেয়ার মনোভাব থাকলে আপনি তা নিয়ে নিজেকে শুধু শুধু কষ্টই দেবেন। এবং ভেবে ভেবে মানসিক চাপে পড়বেন। তাই মেনে নেয়ার ক্ষমতা নিজের মধ্যে তৈরি করুন।

আনন্দদায়ক কিছু করুন

মানসিক চাপ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে মুক্তি পেতে চাইলে এমন কিছু করুন যা আপনাকে আনন্দ দেয়। শুনতে পারেন পছন্দের কিছু গান, ইচ্ছে হলে হেরে গলায় খানিকক্ষণ গান গেয়েও নিতে পারেন। কিংবা আপনাকে জীবন সম্পর্কে উৎসাহী করে এমন কোন পছন্দের বই পড়তে পারেন। কিংবা দেখতে পারেন সফল কিছু মানুষের জীবনী। এতে করে যখনই আপনি মানসিক চাপে পড়বেন তখনই এইসকল কাজের কথা মনে করে নিজেকে রিলাক্স করতে পারবেন। এই কাজটি পরীক্ষিত ভাবে প্রমাণিত। ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকগণ তাদের গবেষণায় এই তথ্যটি প্রমাণ করেন।

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.