অনেক সময় কোনো কাজ করতে না পারলে আমরা সাথে সাথেই না বলে দিই। মনে করি পারি না যেহেতু এটা নিয়ে মাথা ঘামিয়ে সময় নষ্ট করে লাভ নেই। কিন্তু এর পরিবর্তে যে কাজটি করতে পারেন তা হলো, কাজটির জন্য ‘হ্যাঁ’ বলে দিন। এরপর কাজটি কীভাবে করতে হয় তা শিখে ফেলুন। অনেকে মনে করতে পারেন তা কেন হবে, যে কাজ পারবেন না তার জন্য হ্যাঁ কেন শুধু শুধু বলতে যাবেন। কিন্তু ভেবে দেখুন তো আপনি আগে থেকেই না বলে একটি বারও চেষ্টা করে দেখলেন না তা কতোটুকু সঠিক? চেষ্টা করলে পারতেও পারেন। এছাড়াও কাজটি শিখতে পারলে আপনারই লাভ। এমন অনেক সুযোগ সুবিধা রয়েছে যা থেকে আপনি দূরে আছেন শুধুমাত্র ‘হ্যাঁ’ না বলার কারণে। চলুন তবে দেখে নিন ‘হ্যাঁ’ বলার কিছু জাদু।

সুযোগ থেকে বঞ্চিত হবেন না

কথায় বলে সৌভাগ্য একবারই আসে, বারবার নয়। কথাটি অনেকাংশে সত্যি। হয়তো অনেক সুযোগ এবং সুবিধা আপনার জন্য অপেক্ষা করছিল যা আপনার ‘না’ বলার কারণে আপনার কাছ থেকে সরে গিয়েছে। সুযোগ হাতছাড়া করবেন না। হ্যাঁ বলেই দেখুন, একটিবার চেষ্টা করেই দেখুন। হয়তো আপনার হ্যাঁ বলার মাধ্যমে পেতে পারেন অনেক বড় কিছু।

অনেক ধরণের সুযোগ হাতে আসে

আপনি মনের মধ্যে সামান্য দ্বিধা নিয়ে কোনো কাজে না বললেন, কিন্তু এই কাজটি হয়তো আপনার সামনে অনেক বড় বড় সুবিধা এবং স্বপ্ন পূরণের সিঁড়ির মতো ছিল। আপনার না বলার কারণে আপনি তা থেকে সরে আসলেন। হ্যাঁ বলেই দেখুন না। হয়তো জীবনে অনেক সুযোগ এবং স্বপ্ন পূরণের রাস্তা পেয়ে যেতে পারেন।

নতুন কিছুর সাথে পরিচিত হবেন

অনেকেই আছেন নিজের গৎবাঁধা জীবন থেকে বেরিয়ে এসে নতুন কিছু করতে চান না। মনে করেন তাকে দিয়ে হবে না নতুন কিছু। যেমন আছেন তেমন থাকলেই তার জীবন ভালো কাটবে। কিন্তু এই চিন্তাটি আপনাকে কুয়ার ব্যাঙে পরিনত করবে। আপনি যখন নতুন কিছুতে হ্যাঁ বলবেন তখন আপনি আপনার নিজের গৎবাঁধা জীবন থেকে বেরিয়ে নতুন অনেক কিছুর সাথে পরিচিত হতে পারবেন। নতুন কিছু শিখতে পারবেন।

জীবনটা অনেক ছোট তাই নিজেকে ‘কেন’ প্রশ্ন না করে ‘কেন নয়’ প্রশ্ন করুন

আমাদের জীবনটা আসলেই অনেক ছোট। জীবনের আসল গুরুত্ব বুঝতে বুঝতেই আমাদের জীবনটা শেষ হয়ে আসে। তাই এই ছোট্ট জীবনে কেন নতুন কিছু করার সুযোগ এভাবে না বলে হাত ছাড়া করবেন? হ্যাঁ বলুন। নিজেকে কোনো ব্যাপারে ‘কেন করবো’ বা ‘কিভাবে করবো’ প্রশ্ন না করে প্রশ্ন করুন ‘কেন করবো না’। দেখবেন জীবনে অনেকটা এগিয়ে যাবেন।

প্রিয়জনের বিশ্বাস পূরণ হবে

আপনাকে কোনো কাজ দেয়া হলে আপনি তা ঠিক মতো করতে পারবেন, এই বিশ্বাস সব সময়েই করেন আপনার প্রিয় মানুষজন। আপনার আপনজন আপনার প্রতিভা এবং ক্ষমতার ওপর বিশ্বাসী থাকেন। মুখে যতোই বলুন না কেন আপনাকে দ্বারা হবে না, আপনি পারবেন না। কিন্তু তারা এই বিশ্বাসটি করেন আপনি পারবেন। যখন আপনি না বলেন তাদের বিশ্বাসে আঘাত আসে। কিন্তু আপনি যদি হ্যাঁ বলেন তবে তাদের বিশ্বাসের মর্যাদা থাকে।

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.