আজ বিয়ে করছেন তো কাল। এভাবে বেশ কয়েকটি বছর কাটিয়ে অবশেষে গোপনে সারলেন বিবাহপর্ব। কাক-পক্ষীও টের পেল না রানী-আদিত্যর বিয়ের কথা। এমনকি পাপারাৎজির হাত থেকে বাঁচতে ইটালি থেকে একাই মুম্বাই এয়ারপোর্টে নামলেন রানী মুখার্জী।
লুকিয়ে লুকিয়ে যশ ম্যাশনে কাছের বন্ধুবান্ধবদের দেখে পর্দার আরালে সেরে নিলেন বৌভাতের অনুষ্ঠানটি। বেশির ভাগ সময় পর্দার সামনে কাটালেও আদিত্যর সাথে বিয়ে এবং হানিমুন নিয়ে পানি ঘোলাই করে চলেছেন রানী।
তবে এবার ঘটল অন্য ঘটনা। বিয়ের একমাস কাটতে না কাটতেই শ্বশুরবাড়ি থেকে বাপের বাড়ি রওনা দিয়েছেন আদিত্যর রানী। কিন্তু কেন? আবারো রহস্যের হাতছানি।
রানী জানিয়েছেন, তার বাবার খুব শরীর খারাপ। বাবার সঙ্গে সময় কাটাতেই নাকি শশ্বুড়বাড়ি ছাড়ছেন রানী।
তবে কানাঘুষাতে এসেছে অন্য কথা। হানিমুন থেকে ফেরার পর থেকেই আদিত্য নাকি সময় দিচ্ছেন না রানীকে। একটু আলাদা আলাদা থাকছেন রানির থেকে।
আর সেই কারণেই নাকি রানী বাপের বাড়ি রওনা দিয়েছেন। তবে আপাতত, এই খবরকে গুজব বলে উড়িয়েছেন যশরাজ পরিবার।

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.