নারী ও পুরুষের মাঝে ভেদাভেদ থাকবে এটাই স্বাভাবিক। স্বভাবে, ব্যবহারে, অভ্যাসে এবং কাজকর্মে আছে অনেক অনেক পার্থক্য। আর তাই স্বাভাবিক ভাবেই নারীদের অনেক কাজ পুরুষদের কাছে অদ্ভুত ও অর্থহীন মনে হয়। নারীদের কিছু অভ্যাস ও কাজের অর্থ কখনই বুঝতে পারেন না পুরুষরা। সবসময়েই এই ব্যাপার গুলো পুরুষদের কাছে রহস্যময় মনে হয়। জেনে নিন নারীদের তেমনই ১০ টি বিষয় সম্পর্কে যেগুলো পুরুষরা কখনই বোঝে না।
১) যখন সেই জিনিষটি সবচাইতে বেশি জরুরী তখন সেটা ব্যাগের একেবারে গভীরে হারিয়ে যায়। বিশেষ করে মোবাইল ফোনটি।
২) ব্যাগের জিনিসপত্র প্রায় প্রতিদিনই এক ব্যাগ থেকে অন্য ব্যাগে বদল করেন নারীরা। আর পুরুষরা চিন্তা করেন যে কেন প্রতিদিন এতো কষ্ট করেন নারীরা!
৩) একটি চুলের কাট পরিবর্তন করে আরেকটি দিতে একজন নারীর কমপক্ষে ৬ মাস সময় নিতে হয়।
৪) মেয়েরা মেকআপ এর সরঞ্জামাদি কেনার সময় হাতে কেন লাগিয়ে নেয় আগে এটা অনেক পুরুষই বোঝেন না। ঠোটের লিপস্টিক হোক কিংবা মুখের ফাউন্ডেশন, হাতে লাগিয়ে দেখে নেয়ার অর্থটা বোঝেন না বেশিরভাগ পুরুষ।
৫)কেনাকাটা করার সময় কেন নারীদের সবসময়ে সঙ্গী প্রয়োজন এটাও অনেক পুরুষকে ভাবিয়ে তোলে। আর তার কারণ হলো পুরুষদের কাছে কেনাকাটা হলো একটি জরুরী কাজ যা একাই সেরে ফেলা যায়। কিন্তু নারীদের কাছে এটি আনন্দে সময় কাটানোর একটি উপায়।
৬) নিজের সবচাইতে ভালো বান্ধবীর নামেই বদনাম কেন করে নারীরা এটাও ভাবিয়ে তোলে পুরুষদেরকে। কিছুতেই বুঝতে পারেন না তাঁরা এধরনের স্বভাবের অর্থ।
৭) নারীরা কেন চুলের জন্য এতো রকমের চিরুনি ব্যবহার করেন সেটা বুঝতে পারেন না বেশিরভাগ পুরুষ। চুলের জন্য চিকন দাঁত, মোটা দাঁত, রাউন্ড ব্রাশ, চিকন হ্যান্ডেলসহ নানান ধরনের এই চিরুনি ব্যবহারের বিষয়টি বেশ অদ্ভুত মনে হয় পুরুষদের কাছে।
৮) ঘুমাতে যাওয়ার আগে এতো লম্বা প্রস্তুতি কেন নিতে হয় নারীদের? এই প্রশ্নটি অনেক পুরুষের মনেই জেগে থাকে।
৯) বাইরে কোথাও বেড়াতে যাওয়ার আগে নারীরা কেন এতো সময় নিয়ে তৈরী হয় এই বিষয়টিও বেশ ভাবিয়ে তোলে এবং বিরক্তি সৃষ্টি করে পুরুষের মাঝে।
১০) নারীদের কিছু সরঞ্জাম ব্যবহারের অর্থ পুরুষরা কখনই বোঝেন না। আইল্যাশ কার্লার, নেইল ফাইলার ইত্যাদি।

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.