বলিউডের নামকরা সব তারকারা এবার ঝুঁকেছিলেন রাজনীতিতে। অনেকেই শুধুমাত্র কোন দলের হয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় আবার কেউ নিজে থেকেই যোগ দিয়েছিলেন দলে।সব মিলিয়ে বলা যায় ভারতের এবারের নির্বাচনটি ছিল তারকায় খচিত। তবে চলুন দেখে নেয়া যাক কোন অন তারকারা রূপালি পর্দা ছাড়া বাস্তব জীবনে জনগনকে নিজের দিকে টানতে পেড়েছেন। কে হয়েছেন শোচনীয় ভাবে পরাজিত আর কার ভাগ্যে জুটেছে কত ভোট!

হেমা মালিনি

বলিউডের স্বনামধন্য অভিনেত্রী হেমা মালিনি এবারের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। তার আসন ছিল মথুরা। শেষ পর্যন্ত ব্যাপক ভোটের ব্যবধানে জয় পেয়েছেন তিনি। হেমা জয় পেয়েছেন তিন লাখ পঞ্চাশ হাজার পাঁচ শ'র কিছু বেশি ভোটের ব্যবধানে। জয়ের পর তিনি এক টুইট বার্তায় লিখেছেন, "সব যায়গা থেকে খবর আসছে যে, কংগ্রেস-বিজেপির সুনামিতে আক্রান্ত হয়েছে। দেশের পরিবর্তনের পক্ষে রায় দিয়েছে।"
বাপ্পি লাহিড়ি
বলিউডের অনেক গ্লামারাস তারকাকে নিজের প্রচারের জন্যে পশ্চিমবঙ্গে নিয়ে এসেছিলেন বলিউডের নামকরা গায়ক বাপ্পি লাহিড়ি। নির্বাচনের আগে তিনি এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, "আমি বলার চেয়ে কাজ করে দেখানোয় বিশ্বাস করি। আমি রাজনীতির মধ্যেই ছিলাম, যদিও আমি রাজনীতিবিদ নই। আমি এখানে কোনো প্রতিশ্রুতি দিতে আসিনি। আমি এখানে কাজ করতে এসেছি।" শেষ খবর হলো, বাপ্পি লাহিড়ি লোকসভা নির্বাচনে হেরেছেন।
রাখি সায়ান্ত
নিজে দল গঠন করে এবারের লোকসভা নির্বাচনে অন্যান্য তারকাদের অনুকরনে নির্বাচনে দাঁড়িয়েছিলেন বলিউডের আলোচিত অভিনেত্রী রাখি সায়ান্ত। নিজ রাজনৈতিক দলের নাম তিনি দিয়েছিলেন রাষ্ট্রীয় আম পার্টি(আরএপি)। দুঃখের বিষয় হলো, রাখি সায়ান্ত তার খ্যাতির বিনিময়ে মাত্র এক হাজার নয় শত পঁচানব্বই ভোট পেয়েছেন। সঙ্গত কারণেই পরাজিত হয়েছেন তিনি।
কিরন খের
বলিউড অভিনেত্রী কিরন খের এবং গুল পানাং চন্ডীগড় থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। গুল পানাং তরুণ ভোটারদেরকে টার্গেট করে প্রচারনা চালিয়েছিলেন। কিন্তু কিরন খের সবার উদ্দেশ্যেই বিজেপির ব্যানারে। ফলাফলে জয় গিয়েছে কিরন খেরের পক্ষে। তার জয়ের পর তার স্বামী অভিনেতা অনুপম খের টুই করেছেন, "শুভ দিন চলে এসেছে। জয় হো।"
পরেশ রাওয়াল
বিজেপির টিকেটে আহমেদাবাদ থেকে নির্বাচন করেছেন অভিনেতা-পরিচালক পরেশ রাওয়াল। পরেশ এমনিতেই খুবই পরিচিত জনপ্রিয় মুখ। নির্বাচনের প্রচারনায় সামাচিক যোগাযোগ মাধ্যমের উপর জোর দিয়েছিলেন তিনি। শেষ পর্যন্ত বিজয়ী হয়েছেন তিনি।
শত্রুঘ্ন সিনহা
দীর্ঘদিন ধরে রাজনীতিতে সম্পৃক্ত শত্রুঘ্ন সিনহা এবার বিজেপির টিকিটে পাটনা থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। ভোট গননার পর দেখা গেল জয় পেয়েছেন তিনি। প্রচারনার সময় পরিবারের পক্ষ থেকে বেশ সমর্থন পেয়েছেন তিনি।
মহেশ মঞ্জেকরবলিউডের অভিনেতা এবং প্রযোজক এই লোকসভা নির্বাচনের মাধ্যমে রাজনীতিতে আত্নপ্রকাশ করেছেন। মহারাষ্ট্র নবনির্বান সেনার একটি অংশের প্রতিনিধি হিসেবে তিনি নির্বাচনে অংশ গ্রহন করেন মুম্বাইয়ের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল থেকে। কিন্তু অভিষেকে সফল হতে পারেননি তিনি। পরাজয়ই ভাগ্যে জুটেছে তার।
জয়া প্রদা
উত্তর প্রদেশ থেকে রাষ্ট্রীয় লোক মঞ্চের টিকেটে নির্বাচন করেছেন অভিনেত্রী জয়া প্রদা। এর আগে এই আসন থেকে ভালো ব্যবধানে জয় পেয়েছিলেন তিনি। দুর্ভাগ্যবশত এবারের নির্বাচনে তিনি ভোট টানতে ব্যর্থ হয়েছেন তিনি। এবার ভালো ব্যবধানে হেরেছেন তিনি।
রাজ বাব্বর
উত্তর প্রদেশের ঘাজিয়াবাদ থেকে কংগ্রেস দলীয় প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করেছেন প্রবীন অভিনেতা রাজ বাব্বর। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তার অভিনয়ের সুনামে পার পাননি তিনি। বিজেপির স্রোতে ভেসে গেছেন তিনিও।

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.