আমরা সবাই আমাদের মাকে অনেক ভালোবাসি। মায়ের জন্য অনেক কিছুই করতে ইচ্ছা করে। আবার মায়ের শাসনের ভয়ে অন্ধকার পত থেকে নিজেকে সামলেও নেই আমরা। আমাদের মা যেন আমাদের কাছে একজন সুপারওম্যান, যার কাছে পৃথিবীর কোনো কাজই দুঃসাধ্য নয়। সন্তান যা চায়, যে কোনো উপায়ে মা তা দিতে চেষ্টা করেন। সন্তানের সব সমস্যার সমাধান যেন মায়ের কাছে আছে। যত কষ্টই হোক না কেন, মা সন্তানের হাতে তুলে দেন কাঙ্ক্ষিত সব সুখ। আসুন জেনে নেই এমন কিছু অলৌকিক শক্তি যা শুধুমাত্র মায়ের কাছেই আছে।

১. শক্তি যোগাবার অনিঃশেষ ক্ষমতা :

সন্তানদের শারীরিক এবং মানসিক শক্তি যোগাতে প্রতিটি মায়ের রয়েছে অনিঃশেষ অর্থাৎ যা কখনই ক্ষয় হয় না এমন ক্ষমতা। সন্তানরা এমন অনেক কিছুই দাবি করে বসে যা দিতে হয়তবা মায়ের কিছুটা কষ্ট হওয়ার কথা।
কিন্তু সন্তানের মুখের দিকে তাকিয়ে তিনি সেই জিনিসটি তার হাতে তুলে দিবেনই। আর এটি সম্ভব একমাত্র এই বিশেষ ক্ষমতার বলেই।

২. অনিঃশেষ ভালোবাসা :

আমরা অনেকেই ভালবাসতে জানি। কিন্তু একটু খেয়াল করে দেখলে বোঝা যাবে একজন মায়ের ভালোবাসার সাথে আসলে কোনো তুলনা করা যায় না। মা তার সন্তানদের অনেক বেশি ভালোবাসেন যা যা কখনোই শেষ হয়ে যায় না। অন্য সব ভালোবাসা একদিন হয়ত শেষ হয়ে যায়। কিন্তু মায়ের ভালোবাসা চিরন্তন, কোনোদিন শেষ হয়না।

৩. ষষ্ঠ ইন্দ্রিয় :

আমাদের সবারই পঞ্চইন্দ্রিয় রয়েছে। যেগুলো দিয়ে আমরা দেখি, কথা বলি, শুনি, কোনো কিছুর স্বাদ গ্রহণ করি। কিন্তু পৃথিবীর প্রতিটি মায়ের এই পঞ্চ ইন্দ্রিয় ছাড়াও আরেকটি ইন্দ্রিয় সক্রিয় রয়েছে যা দিয়ে তারা সন্তানের মঙ্গলাবস্থা বা খারাপ অবস্থা আগে থেকেই অনুভব করতে পারেন। তারা বুঝতে পারেন এতে সন্তানের ক্ষতি হতে পারে বা এতে ভালো হতে পারে। মায়েরা এই ইন্দ্রিয় দিয়ে সন্তানের আসন্ন বিপদ সম্পর্কে জানতে পারেন।

৪. বিপদে রক্ষা করার জাদুকরী ক্ষমতা :

সন্তানের যেকোনো ধরনের বিপদে মা রক্ষা করে থাকেন। মা তার জীবনের চেয়েও বেশি তার সন্তানকে ভালোবাসেন। তাই যেকোনো বিপদ থেকে সন্তানকে রক্ষা করতে তৎপর হয়ে ওঠেন। সেটা যত কঠিন বিপদই হোক না কেন তিনি আপ্রাণ চেষ্টা করেন।

৫. অসীম ধৈর্য :

একজন নারী তার ব্যক্তিগত জীবনে যতই অধৈর্যের পরীক্ষা দেন না কেন যখন তিনি মা হয়ে যান তখন তিনি অসীম ধৈর্য ধারণের শক্তি অর্জন করেন। সন্তানের যেকোনো বিপদ ধৈর্য সহকারে তা মোকাবেলা করেন, সন্তানের অসুখ বিসুখে ধৈর্য ধারণ করে তার সেবা করে থাকেন। সন্তানের সুখের জন্য তিনি জীবনের পরীক্ষাতেও ধৈর্য ধারণ করে থাকেন।

৬. অসীম সহনশীলতা :

পৃথিবীর প্রতিটি মা-ই আরেকটি শক্তির অধিকারী অর্থাৎ তিনি অসীম সহশীলতার অধকারী। সন্তানের জন্য তিনি যে কোনো পরিস্থিতিতে সহনশীল হয়ে থাকেন। তিনি যেকোনো পরিস্থিতি সহ্য করে যান। এই সহ্য ক্ষমতার সাথে অন্য কোনো কিছুই তুলনা করা যায় না।

৭. সন্তানকে বুঝতে পারার শক্তি :

এক্স-রে মেশিনে যেমন দেহের সব কিছুই সূক্ষ্মানুসূক্ষ্মভাবে ধরা পড়ে ঠিক একইভাবে সন্তানের মুখ দেখলে একজন মা যেন সন্তানের নাড়ি-নক্ষত্র সব বুঝতে পারেন। এতে তার দৃষ্টিভঙ্গি যেন এক্স-রে মেশিনের মত কাজ করে।
বিভাগ: ,

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.