রজনীকান্তকে আলাদা করে পরিচয় করিয়ে দেয়ার দরকার নেই। ভারতের দক্ষিনী সিনেমার এই সুপার স্টার তার ভিন্ন ধর্মী উপস্থাপন এবং অভিনয় দক্ষতা দিয়ে নিজেকে আলাদা স্থানে নিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছেন। শুধু তাই নয়, ধারণা করা হয় বলিউডের সম্রাট অমিতাভ বচ্চনের চাইতেও এই তারকা জনপ্রিয়। রূপালি পর্দায় এই অভিনেতা এতটাই জীবন্ত যে ভক্তরা প্রায়ই ভুলে যান তিনি রক্তে-মাংসে গড়া একজন মানুষ। আজ রইল এই "থালাইভার" এমন কিছু মজার এবং অজানা তথ্য যা আপনি আগে কখনই জানতেন না।
  • -যুবক বয়সে তিনি নানা ধরনের ছোটখাটো কাজ করতেন। তবে শুনলে বেশ অবাক হবেন এখন যার পারিশ্রমিক ২৬ কোটি টাকা তিনি এক সময় বাসের কন্ডাক্টর হিসেবে কাজ করেন।
  • -রজনীকান্তের আসল নাম ছিল শিভাজী রাও গাইকোয়াদ। ব্যাঙ্গালুরের মাইসোর সিটিতে এ অভিনেতার জন্মগ্রহন। পরিবারের চার ভাইবোনদের মধ্যে সর্ব কনিষ্ঠ তিনি।
  • -অনেকেই জানেন না যে এই তারকা তামিল, তেলেগু, কান্নারা, মালায়ালাম, হিন্দি এবং বাংলা ভাষায় সিনেমা করলেও মাতৃভাষা মারাঠিতে আজো কোন সিনেমায় কাজ করা হয়নি।
  • -সব থেকে মজার ব্যাপার হল এই তারকা এতটাই জনপ্রিয় যে পরিচালকেরা সিনেমাতেও রজনীকান্তকে মেরে ফেলতে ভয় পান। আর যদি কোন পরিচালক এই কাজটি করেন তবে তো কথাই নেই। পরিচালকরা মনে করেন রজনীকান্তের মৃত্যু দেখালে রজনী-ভক্তরা রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ করবে! সবার ধারনা রজনীকান্ত কখনোই মরতে পারেন না।
  • -তবে এই অভিনেতা মরন ব্যাধি ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে চলচ্চিত্রে পা দেন। না ভয় পাওয়ার কিছু নেই, ১৯৭৫ সালে ‘অপূর্ব রাগাঙ্গাল’ সিনেমায় একজন ক্যান্সার রোগীর চরিত্রেই অভিনয় করেন রজনীকান্ত ।
  • -পুরো ভারতে তিনিই একমাত্র অভিনেতা যার সিনেমা জাপানি এবং জার্মান ভাষায় রুপান্তর করা হয়। এবং ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়।
  • -৬৩ বছর বয়সী এই অভিনেতা কি না পারেন। তার এক ফুঁ-তেই কুপোকাত হয় শত্রু। তবে খুব সম্প্রতি এই অভিনেতাকে পুরোপুরি নতুন রূপে দেখতে পাবেন দর্শকেরা। সিক্স প্যাকের অধিকারী রজনীকান্তকেই দেখা যাবে সিনেমার পর্দায়। কিন্তু বাস্তব জীবনে এই তারকার মাথায় পড়েছে টাক, ইতোমধ্যেই গত হয়েছে কয়েকটি দাঁত।
  • -‘শিবাজি’ ছবির ব্যবসা সফলতা রজনীকান্তের পারিশ্রমিক ২৬ কোটি রুপিতে পৌঁছে দেয়। এতে করে জ্যাকি চ্যানের পরে রজনীকান্ত এশিয়ার সর্বাধিক পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত অভিনেতা বনে যান।
  • - আপনি যদি রজনীকান্তের সত্যিকারের ভক্ত হয়ে থাকেন তবে নিশ্চয়ই জানবেন যে তিনি ভারতের সেই সময়ের সবচেয়ে বিতর্কিত আইটেম গার্ল সিল্ক স্মিতার সাথে কয়েকটি গানে পা মিলিয়েছিলেন।

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.