রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) বোমা ফাটিয়ে ছাত্রলীগের দুই নেতা মাসুদ হাসান ও টগর মোহাম্মদ সালেহীকে কুপিয়ে হাত-পা কেটে দিয়েছে শিবির ক্যাডাররা। মঙ্গলবার সকাল আটটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় জিয়াউর রহমান হলের সামনে এ ঘটনা ঘটে।
আহত দুই জনকেই আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপতালে নেয়া হয়েছে।
আহত মাসুদ হাসান বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী এবং বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আয়াতুল্লাহ বেহেস্তির ছোট ভাই। টগর মোহাম্মদ সালেহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।
মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন বলেন, পুলিশের ধারণা এ কাজ শিবির ছাড়া আর কেউ করেনি। আমরা অপরাধীদের ধরতে এরই মধ্যে অভিযান শুরু করেছি।
তিনি আরও বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় শিবিরের নেতা হান্নান, ওয়ালিউল্লাহ ও মাহমুদকে ছাত্রলীগের হাতে মারধরের সময় মাসুদ সঙ্গে ছিল। এ কারণে শিবির তাদের ওপর হামলা করতে পারে বলেই ধারণা করা হচ্ছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সকাল ৮টার দিকে টগর ও মাসুদ হবিবুর রহমান হলের পাশের রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলেন। এসময় আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা শিবির ক্যাডাররা অতর্কিত ককটেল ফাটিয়ে তাদের ওপর হামলা করে।
এসময় শিবির ক্যাডাররা তাদের উপর্যুপরি কুপিয়ে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। এতে মাসুদের একটি পা হাঁটুর নিচ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় এবং টগরের ডান হাতের রগ কেটে যায়। এছাড়া, মাসুদের মাথায় গুরুতর আঘাত রয়েছে।
রাবি ছাত্রলীগ সভাপতি মিজানুর রহমান রানা বলেন, শিবির ক্যাডাররা পরিকল্পিতভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে তাদের ওপর হামলা চালিয়েছে। তাদের উভয়ের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে তিনি জানান।

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.